শোভনকে ফোন এমপির, কীসের ইঙ্গিত?

sovon Chatterjee
Please follow and like us:
0

রোজনামচা প্রতিবেদন‌ঃ যাঁরা ভেবেছিলেন রাজ্যের দমকল ও আবাসনমন্ত্রী এবং কলকাতা পুরসভার মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যয় সমস্ত পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার পর ল্যাটা চুকে গেছে তাঁরা ভুল ভাবছেন। কারণ শনিবারেও রহস্যজনক খবরের শিরোনামে উঠে এলেন তিনি। জানা গেল, তাঁকে শোভনবাবুকে ফোন করেছেন দলের সাংসদ। ফোন করে তাঁর সঙ্গে দেখা করতেও বলেছেন। ফলে কেন ডেকেছেন, সেই প্রশ্নই এখন শোভন-সংবাদ পিপাসুদের কাছে আলোচনা এবং সেই প্রশ্নের উত্তর আগ্রহের সৃষ্টি করেছে।

গত মঙ্গলবার একটি সরকারি অনুষ্ঠানের মঞ্চেই তাঁকে মন্ত্রিত্ব ছাড়তে বলা হয়েছিল বলে জানা গিয়েছিল। যিনি তাঁকে মন্ত্রিত্ব দিয়েছিলেন সেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই তাঁকে মন্ত্রিত্ব ছাড়তে বলায় কালবিলম্ব করেননি শোভনবাবু। পরে মমতা জানান, এই প্রথম নয়, এর আগেও ৩-৪ বার মন্ত্রিত্ব থেকে অব্যাহতি চেয়েছিলেন শোভনবাবু। ফলে তাঁর কথা রেখেই তিনি পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেছেন। মাঝে এক দিন বাদেই বৃহস্পতিবার কলকাতার মেয়র পদ থেকেও ইস্তফা দেন তিনি। মমতা নতুন মেয়র হিসাবে নাম ঘোষণা করেন পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমের। কিন্তু এত কিছুর মাঝে স্ত্রী রত্নার সঙ্গে তাঁর যে পারিবারিক সমস্যা বেঁধেছিল আগে থেকেই সেটাও চাগাড় দিয়ে ওঠে নতুন করে। তাঁদের সংসার ভাঙনের মামলা চলছে আদালতে। সরকারি পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার পর সেই ভাঙনের কঙ্কালগুলো ফের দাঁত বের করে হাসতে থাকে। মানুষ মজা পায়। ধরে নেয় শোভন শেষ।

কিন্তু শনিবার শোভনবাবুকে তৃণমূলের সাংসদ সুব্রত বক্সি ফোন করেছেন বলে যে সংবাদ ছড়ায়, তাতে ফের তাঁর ডাঙায় ওঠার ছবি ফুটে উঠতে শুরু করেছে।

শনিবার দুপুর ১টা নাগাদ না কি শোভন চট্যোপাধ্যায়কে  ফোন করেন সুব্রত বক্সী। কথোপকথন দীর্ঘ ছিল না। তবে তৃণমূল সূত্রে খবর, আগামী সপ্তাহে কোনও একটা দিনে শোভনকে দেখা করতে বলেছেন সুব্রত বক্সি। শোভনও জানিয়েছেন, তিনি অবশ্যই দেখা করবেন। কিন্তু প্রকাশ্যে তৃণমূলের তরফে এমন ফোনালাপের কথায় মান্যতা দেওয়া হয়নি। তবুও জল্পনা আবার একবার দানা বেঁধে উঠছে।

শোভনবাবু যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রতি কৃতজ্ঞ সে কথা তিনি নিজেই বলেছেন। কথা দিয়েছেন, তিনি দলের কোনো ক্ষতি করার কথা ভাবতেই পারেন না। অন্য দিকে তাঁর বিজেপিতে যোগ দেওয়ার জল্পনাও অস্তমিত। ফলে তাঁকে যদি সত্যিই দলের তরফে কেউ ফোন করেন থাকেন তা কিন্তু কোনো না কোনো একটা ইঙ্গিত বহন করে বলেই মনে করা যেতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *