তৃণমূল ১২২, বিজেপি ৫

Please follow and like us:
0

রোজনামচা প্রতিবেদন‌ঃ আগামী ৩ ডিসেম্বর হতে চলেছে কলকাতা পুরসভার মেয়র পদের নির্বাচন। বুধবার ছিল মনোনয়ন জমা দেওয়ার দিন। পূর্ব ঘোষণা মতোই মেয়র পদের প্রার্থী হিসাবে তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন ফিরহাদ হাকিম। কিন্তু আগাম কোনো আন্দাজ ছাড়াই প্রার্থী দিল বিজেপিও। হার যে নিশ্চিত তা বোঝে বিজেপিও। তবুও মেয়র পদের প্রতিদ্বন্দ্বিতায় কলকাতা পুরসভার বিজেপি কাউন্সিলার মীনা দেবী পুরোহিতকে প্রার্থী করে কী বার্তা দিতে চাইছে বিজেপি?

বিধানসভায় পুর আইন সংশোধনের বিল পাশ করার দিন বিজেপি বিধায়করা কোনো বিরোধিতা করেননি। কিন্তু বামফ্রন্ট এবং কংগ্রেসের তরফে সমর্থনও জানানো হয়নি। তাঁদের সমর্থনের দরকারও অবশ্য হয়নি বিধানসভায় সংখ্যাধিক্য থাকা তৃণমূলেরও। তবে তখন থেকেই পুর আইন সংশোধনের এই বিলের বিরোধিতা করে আদালতে যাওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছিল সিপিএম। কাকতালীয় ভাবে এ দিনই কলকাতা হাইকোর্টে পুর আইন সংশোধনকে চ্যালেঞ্জ করে মামলা করেছে সিপিএম।

এ দিন কলকাতা পুরসভার ৭৫ নাম্বার ওয়ার্ডের সিপিএম কাউন্সিলার বিলকিস বেগম মামলা করেছেন তাঁর আইনজীবী মারফত। সেখানে কী হতে চলেছে, সেটা আদালতের শুনানি এবং রায়দানের মাধ্যমেই স্পষ্ট হবে। কিন্তু সিপিএম মেয়র পদের নির্বাচন থেকে সিপিএম নিজেদের সরিয়ে রেখে তার পরে আদালতে গিয়ে মামলা করে তৃণমূল বিরোধিতাকে বেশ ভালো করেই মনে করিয়ে দিল। বিজেপি ওই বিলের বিরোধিতা করেনি, আবার মেয়র পদে নির্বাচনে প্রার্থীও দিল। ফলে তারাও নিজেদের অবস্থান অপরিবর্তিত রইল। ক্ষমতা দখলের জন্য যা যা করণীয় তা করে দেখাতে চায় বিজেপি। তাই বলে হার নিশ্চিত বুঝেও কেন এমন পদক্ষেপ?

মেয়র পদে তৃণমূলের প্রার্থী ফিরহাদ হাকিম পুরসভার কাউন্সিলার নন। তিনি বিধায়ক হয়ে মন্ত্রী হয়েছেন। যে কারণে লোকসভা বা বিধানসভার মতোই নতুন ওই আইনে পরে জিতে আসার নিয়মও অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে। সেই মতোই তাঁর আগামী দিনে ৮২ নম্বর ওয়ার্ড থেকেই পুরভোটে লড়ার ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে।

এ দিন মীরাদেবী পুরোহিতের প্রসঙ্গ ওঠায় ফিরহাদ হাকিম বলেন, “আমার সঙ্গে ১২২ জন কাউন্সিলর রয়েছে।  গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে সবাই প্রার্থী হতে পারেন। আগামী ৩ তারিখ নির্বাচন। আমি নিশ্চিত, সেদিনও নির্বাচনের পর এই ঘরে বসেই আমি আপনাদের সঙ্গে প্রেস কনফারেন্স করব।”

সত্যিই তাই। তাঁর সঙ্গে ১২২ জন কাউন্সিলার থাকায় তিনি জয়ের ব্যাপারে ১০০ শতাংশ নিশ্চিত। কিন্তু যেটা দেখার, তা হল বিজেপি প্রার্থী মীনা দেবী পুরোহিত ৫টি ভোট পাবেন তো ?

অঙ্ক ওলোটপালোট হওয়ার আশঙ্কা একেবারেই উড়িয়ে দেওয়া যায় না, তবে এর জন্য অপেক্ষা ওই ৩ ডিসেম্বরের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *