কড়াইশুঁটির ঘি ভাত

Please follow and like us:
1

 

শেখর বাগচি –

শীতের আমেজ শুরু হয়ে গেছে। কনকনে না হলেও পড়েই গেছে তাপমাত্রা। আর শীত মানেই হরেকরকম সবজি। বাজারে গেলেই পাওয়া যাবে ফুলকপি, বাঁধাকপি, ওলকপি, বিনস, বীট গাজর, কড়াইশুঁটি। আরও কতো কি। কাজেই একথা বলাই যায় খাওয়া দাওয়া শীতেই জমে ভালো। হরেকরকম পদ নিয়ে খেতে বসতে ভালোই লাগে। এরকমই এক খাবারের খোঁজ নিয়ে এসেছি আমি।

ভাত তো আমাদের প্রতিদিন চাইই। ভাত খায় না এরকম লোক খুব কমই আছে। আর সেই ভাতকেই একটু অন্যভাবে কীভাবে আরও সুস্বাদু বানানো যায় তাই আজ আপনাদের বলবো। বাড়িতে ভাত তো রোজ বানাতে হয়ই। সেই ভাতের সঙ্গে কিছু কিছু জিনিষ মেশালে সেই ভাতের স্বাদ সম্পূর্ণ অন্যরকম হয়ে যাবে। আর বাচ্চারাও দেখবেন খাওয়া নিয়ে আর বায়না করবে না। তারা খাবে চেটেপুটে। চলুন জেনে নিই কি কি উপকরণ লাগবে।

১.    দেরাদুন রাইস – ৫০০ গ্রাম।

২.    কড়াইশুঁটি হাফ কাপ।

৩.    পেঁয়াজ কুচানো ভাজা এক কাপ।

৪.    গরম মশলা ১ চা চামচ।

৫.    ঘি প্রয়োজন মতো।

৬.    নুন-চিনি স্বাদ মতো।

৭.    তেজপাতা ৪-৫টা।

৮.   জয়িত্রী জাইফল গুঁড়ো স্বাদ মতো।

কীভাবে রাধবেন –

একটা পাত্রে বেশি করে জল নিন। জল গরম হলে তার মধ্যে কড়াইশুঁটি, নুন, তেজপাতা দিয়ে ফোটান। এরপর তার মধ্যে চাল ধুয়ে দিন। ফোটাতে থাকুন। চাল সিদ্ধ হলে ফ্যান ঝরিয়ে ভাতকে ঝরঝরে করে নিন। কুচানো পেঁয়াজকে ঘিয়ে বাদামি করে ভেজে নিতে হবে। অন্য একটা পাত্রে অল্প ঘি দিয়ে গরম করে তার মধ্যে সামান্য চিনি দিতে হবে। চিনি গলে গেলে তার মধ্যে ভাত দিয়ে নাড়াচাড়া করুন। তারপর তারমধ্যে ভাজা পেঁয়াজ, গরমমশলা ও জয়িত্রী জাইফল গুঁড়ো মিশিয়ে নামিয়ে নিন।

তৈরি আপনার ঘি-কড়াইশুঁটি ভাত। ছুটির দিনে চিকেন বা মটনের সাথে পরিবেশন করুন। বাড়ির সবাই চেটেপুটে খাবে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *